Corona-Update

মনজুর হোসেন, বাংলারশিক্ষা:
করোনা আতংক মাদারীপুরে ছড়িলে পড়লে সাধারণ মানুষ অতিরিক্ত পণ্য কিনতে শুরু করে। আর এই সুযোগে বিভিন্ন ব্যবসায়ী নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দামও অতিরিক্ত মূল্যে বিক্রি করার অভিযোগ পাওয়া যায়। এর ভিত্তিতে অতিরিক্ত দামে পন্য বিক্রি করা ও নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে দোকান খোলা রাখায় মাদারীপুর জেলার সদর, রাজৈর ও শিবচর উপজেলার বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত।

জানা গেছে, শনিবার সকাল ১১টা থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী মাজিস্ট্রেট মো. আসাদুজ্জামানের নেতৃত্বে নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য দ্রব্যের বাজার দর নিয়ন্ত্রনে শিবচর বাজার সহ আশেপাশের কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখেন এবং দোকানে মূল্য তালিকা ঝুলিয়ে রাখার নির্দেশ দেন। এ সময় পৌরসভার শিবরায়ের কান্দি মোড় এলাকায় দোকান খোলা রাখার দায়ে তিন দোকান মালিককে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

Mobile-court

অপরদিকে, শনিবার সকালে রাজৈর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সোহানা নাসরিন উপজেলার টেকেরহাট বন্দরের শিমুলতলা কাঁচামালের পাইকারী বাজারে অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় মূল্য তালিকা দেখাতে না পারায় কাঁচাবাজার কমিটির সভাপতি আবুল হোসেন শেখকে ৩০ হাজার, ব্যবসায়ী খোকন খালাসী ও তারামিয়াকে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন।

এছাড়া, আজ (শনিবার) বেলা ১১ টার দিকে ভোক্তা অধিকার সংগঠনের মাদারীপুর জেলার সহকারী পরিচালক জান্নাতুল ফেরদৌস এর নেতৃত্বে টেকেরেহাট চাউলের আড়তে অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় ধার্য্যকৃত মূল্যের অধিক দামে চাল বিক্রি করায় ব্যবসায়ী হরিপদ সাহাকে ১০ হাজার, খায়রুল ইসলাম ও মোতালেব মাতুব্বরকে ৬ হাজার করে জরিমানা করেন।