chatroleauge

লিখন মুন্সী, বাংলারশিক্ষা:
করোনা ভাইরাসের কারণে কার্যত লকডাউন রয়েছে গোটা দেশ। যার কারণে পাকা ধান ঘরে তোলার জন্য প্রয়োজনীয় শ্রমিক পাচ্ছেন না কৃষকরা। ফলে অনেকটাই বিপাকে পড়েছেন কৃষকরা। এমনই এক পরিস্থিতিতে ধান কেটে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে দিয়েছেন মাদারীপুর সরকারি নাজিমউদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের একটি দল।

মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে সরকারি নাজিমউদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিজানের নেতৃত্বে ২০ সদস্যের একটি দল সদর উপজেলার পেয়ারপুর ইউনিয়নের নয়াচর গ্রামের আব্দুর রহমান হাওরাদার নামে এক কৃষকের ৭০ শতাংশ জমির ধান কেটে দিয়ে বাড়ীতে পৌঁছে দেয়। এ মহামারির সময়ে ধান কেটে দেওয়ায় খুশি কৃষক।

ধান কাটা দলে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সরকারি নাজিমউদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফরিদ সর্দার, সহ-সভাপতি ইউসুফ, জনি, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মিজান ঢালী, সোহানুর রহমান সোহাগ, নুহিন হাওলাদার, পৌর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি লিখন মুন্সি প্রমুখ।

ছাত্রলীগ নেতা মিজানুর রহমান মিজান বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্দেশনায় আমরা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সরকারী নাজিমউদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ শাখা গ্রামের দরিদ্র কৃষকের ধান কেটে দিচ্ছি। আমাদের এই ধান কাটা পুরো বোরো মৌসুম অব্যাহত থাকবে।