বাংলারশিক্ষা ন্যাশনাল ডেক্স:

জেএসসি, জেডিসি এবং এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নিয়ে অনুমান নির্ভর রিপোর্ট করতে ‘না’ করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বুধবার (১২ আগস্ট) শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা অনুষ্ঠান হওয়া নিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সুনির্দিষ্ট কোনো সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত অনুমান নির্ভর কোনো সংবাদ বা গুজব আমলে না নেয়ার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের জানান, সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ বছরের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষা হচ্ছে না মর্মে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। এই বিষয়ে জনমনে বিভ্রান্তির সৃস্টি হয়েছে। বিশ্বব্যাপী কোভিড নাইনটিনের মহামারিকে বিবেচনায় নিয়ে জেএসসি পরীক্ষার বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয় বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ চেয়েছিলেন। বিশেষজ্ঞরা তাদের পর্যবেক্ষণসহ কিছু বিকল্প প্রস্তাব প্রদান করেছেন। মন্ত্রণালয় প্রস্তাবসমূহ পর্যালোচনা করছে। ইতোমধ্যে কিছু গণমাধ্যমে উল্লেখিত বিষয়ে সারসংক্ষেপ প্রণয়ন করা হয়েছে মর্মে সংবাদ প্রকাশ করেছে।

তিনি আরও জানান, অন্যদিকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠানের তারিখ নিয়েও বিভিন্ন গণমাধ্যমে কল্পিত তারিখ প্রকাশ করা হয়েছে। করোনা মহামারিকে বিবেচনায় নিয়ে জেএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠানের বিভিন্ন বিকল্প নিয়েই শিক্ষা মন্ত্রণালয় ভাবছে। এই বিষয়ে এখনও কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের উদ্যোগের কথা বিবেচনা করে শীঘ্রই সংশ্লিষ্টদের সাথে আলোচনা করে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। যা ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হবে। অসমর্থিত কোনো মাধ্যমের তথ্যের ভিত্তিতে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের বিভ্রান্ত না হতে বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো।

উল্লেখ্য, আজ ১২ আগস্ট দৈনিক যুগান্তর, দৈনিক সমকাল ও দৈনিক কালের কণ্ঠসহ একাধিক জাতীয় পত্রিকা, একাধিক অনলাইন ও টেলিভিশনে সেপ্টেম্বর মাসে এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে মর্মে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। এদের মধ্যে কেউ কেউ লিখেছে সেপ্টেম্বরের শেষে অথবা অক্টোবরের শুরুতে। সৌজন্যে: দৈনিকশিক্ষাডটকম