রাজৈর, বাংলারশিক্ষা:
‘নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীদের আর নৌকায় উঠতে দেয়া হবে না ’ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক রবিবার বিকেলে রাজৈর পৌরসভা নির্বাচনের এক পথসভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

জাহাঙ্গীর কবির নানক আরো বলেন, রাজৈর পৌরসভার দৈনদশা দেখে আমি অবাক হচ্ছি, কিভাবে পৌরসভাটি এতো অবহেলিত রইল, বিগত মেয়র কি কাজ করলেন? আপনারা নৌকার প্রার্থীকে ভোট দিলে রাজৈর পৌরসভাকে তৃতীয় শ্রেণি পৌরসভা থেকে প্রথম শ্রেণির পৌরসভা করার ব্যবস্থা করা হবে।

পথসভায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ.ফ.ম বাহাউদ্দিন নাছিম বলেন, আপনারা দলের পরিচয়ে পরিচিত হবেন, সুবিধা নিবেন কিন্তু নির্বাচনে মনোনয়ন না পেলেই বিদ্রোহী প্রার্থী হবেন, আর তা হতে দেওয়া হবে না। আগামীতে বিদ্রোহী কোন প্রার্থী নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন পাবেন না। আগামী ১০ ডিসেম্বর নির্ভয়ে নৌকা প্রতীকে ভোট প্রদানের মাধ্যমে রাজৈর যে নৌকার ঘাঁটি তা প্রমাণের জন্য ভোটারদের প্রতি তিনি আহবান জানান।

প্রার্থী প্রভাষক নাজমা রশীদ তার বক্তব্যে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমার উপর আস্থা রেখে নৌকা প্রতীক প্রদান করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর সেই আস্থার ফলাফল দেওয়া আপনাদের দায়িত্ব। আপনারা নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে বিজয় উপহার দিবেন। আপনাদের মূল্যবান ভোট ও দোয়া কামনা করি।

পথসভায় অন্যান্য বক্তরাও আসন্ন রাজৈর পৌরসভা নির্বাচনে নৌকা প্রার্থী প্রভাষক নাজমা রশীদকে ভোট দিয়ে জয়লাভ করার আহবান জানানো হয়।

পথসভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ.ফ.ম বাহাউদ্দিন নাছিম, মাদারীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন আহমেদ মোল্লা, মাদারীপুর পৌরসভার মেয়র খালিদ হোসেন ইয়াদ প্রমূখ। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজল কৃষ্ণ দে’র সঞ্চালনায় পথসভায় সভাপতিত্ব করেন রাজৈর পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমান। পথসভায় জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ও সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।