বাংলারশিক্ষা ন্যাশনাল ডেক্স:
বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নতুন শিক্ষক নিয়োগের চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি ‘শিগগিরিই’ প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। রোববার সকালে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান শিক্ষামন্ত্রী।

বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ১৫ হাজারের বেশি শিক্ষক নিয়োগের বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তির ফল ও তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তিতে যোগদান না করা পদগুলোতে দ্বিতীয় ধাপের সুপারিশের জন্য ১১ হাজার ৭৬৯ জন প্রার্থীদের নির্বাচন করার বিষয়ে জানাতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

জানা গেছে, ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দে সর্বশেষ শূন্যপদের তথ্য সংগ্রহ করার পর ২০২১ খ্রিষ্টাব্দের মার্চে শিক্ষক নিয়োগের তৃতীয় গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে এনটিআরসিএ। তারপর শূন্যপদের তথ্য সংগ্রহ হয়নি। গত আড়াই বছরে বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অনেক শিক্ষক অবসরে গিয়েছেন। স্কুল-কলেজ, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে অনেক শিক্ষক পদ শূন্য হয়েছে। সম্প্রতি চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশে শূন্যপদের তথ্য সংগ্রহ শুরু করছে এনটিআরসিএ। এর জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রোফাইল হালনাগাদ ও ই-রেজিস্ট্রেশন চলছে।

চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি কবে প্রকাশিত হবে জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, নতুন শিক্ষক নিয়োগের পরও কিছু পদ খালি থেকে যাচ্ছে। এখন শূন্যপদের চাহিদাও আসবে। সেগুলো নিয়ে আমরা শূন্যপদের চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি দেবো। খুব শিগগিরই আমরা গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করবো বলে আশা করছি।

জানা গেছে, আগামী ৭ জুন পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রোফাইল হালনাগাদ ও ই-রেজিস্ট্রেশনের সময় দেয়া হয়েছে। এরপর প্রায় ১ মাস শূন্যপদের তথ্য সংগ্রহের সময় দেয়া হবে। সে হিসেবে জুলাইয়ের মধ্যে শূন্যপদের তথ্য এনটিআরসিএতে পৌঁছাবে। এরপর যাচাই বাছাই শেষে চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন কর্মকর্তারা। যদিও কবে নাগাদ চতুর্থ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হবে সে বিষয়ে সুস্পষ্ট কোনো মন্তব্য করেননি কর্মকর্তারা।
সৌজন্যে: দৈনিকশিক্ষাডটকম।